গঙ্গার পাড়ে

কল্যাণী পুরোটা সাইকেলে ঘুরবো ঠিক করেই আজ বেরিয়েছিলাম। যদি বলা হয় কেন আমি এ দেশে থেকে যেতে চাই সেটা সাইকেলের জন্যে। সাইকেলে চালিয়ে একটা শহর দেখা যাবে এটা কি যে সুন্দর একটা ব্যাপার। রাস্তার দু পাশে গাছ অার গাছ অার পথে ঝরে যাওয়া ফুল। যেন হলুদের বিছানা কেউ সাজিয়ে রেখেছে। অনেক দূর পর্যন্ত সোজা রাস্তা চলে গেছে। অামরা একদিকে প্রকৃতিকে নষ্ট করে নগর গড়ছি অার এখানে নগরের ভেতর প্রকৃতি গড়ে তোলা হয়েছে। দু একটা ম্যাজিক গাড়ি(যেটাকে তিন চাকার মোটর গাড়ি বলি) একটু পর পর পাশ কেটে যাচ্ছে।অার অাছে ব্যাক্তিগত কার সেটাও অল্প। যেটা মনে হলো প্রয়োজন ছাড়া এদিকে কেউ বেরোয় না তাই ভীড় ও নেই। একটু যেতেই বিল। এটা শহরের বাইরে। রাস্তার পাশেই ইটভাটা। অারো অল্প যেতেই গঙ্গা। সবুজের পথ এখানেই থেমে গেছে। এই ছেলেগুলো ভেতরের এলাকা থেকে এসেছে গঙ্গায় গোসল করতে। গঙ্গাটার ধারটা অামাদের কর্ণফুলীর মতো। এপার ওপার নৌকায় অাসা যাওয়া। কাল পরশু যাব একবার গঙ্গায় ডুব দিতে।ওপারে যাবে কেউ?


Post a Comment

0 Comments